মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

প্রকল্প

গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্পসমূহ

 

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার সিসিমপুর আউটরীচ প্রকল্প বাংলাদেশ শিশু একাডেমী মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় সার-সংক্ষেপ : বাংলাদেশ শিশু একাডেমীর অধীনে সিসিমপুর আউটরীচ প্রকল্প বাসত্মবায়িত হচ্ছে। আড়ম্বরপূর্ণ এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে গত ০৯ নভেম্বর ২০১০ তারিখে প্রকল্পের উদ্বোধন করা হয়েছে। সিসিমপুর হচ্ছে প্রাক প্রাথমিক শিক্ষা বিষয়ক একটি মিডিয়া প্রকল্প যা পুরস্কার প্রাপ্ত টেলিভিশন সিরিজ সিসেমী ষ্ট্রীটের বাংলাদেশী সংস্করণ। ২০০৫ সালের ১৫ এপ্রিল থেকে নিয়মিতভাবে প্রচারিত অনুষ্ঠানটি যৌথভাবে প্রযোজনা করছে বাংলাদেশের নয়নতারা কমিউনিকেশনস ও নিয়ইয়র্ক ভিত্তিক অলাভজনক সংস্থা সিসেমী ওয়ার্কশপ। সিসিমপুর বাংলাদেশের ৩-৬ বছর বয়সী শিশুদের শেখার চাহিদা অনুযায়ী তৈরী করা হয়। শিশুদের চাহিদা নিশ্চিত করার জন্য সিসিমপুর এর শিক্ষাক্রম কাঠামো তৈরী করা হয়েছে স্থানীয় বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ অনুযায়ী । নিয়মিত গবেষনার মাধ্যমে এই কাঠামোর উত্তরোত্তর উন্নয়ন করা হয়। বিটিভি ও বিটিভি ওয়ার্ল্ডে প্রচারিত সিসিমপুর শিশুরা যেমন ভালোবাসে তেমনি বড়দের কাছেও সমাদৃত। কিন্তু সুবিধাবঞ্চিত বেশির ভাগ শিশুই টেলিভিশন দেখার সুযোগ পায়না বলে সিসিমপুর দেখতে পায়না। সুবিধাবঞ্চিত সেই সব শিশুদের কথা বিবেচনায় এনে প্রকল্পটি নেয়া হয়েছে। প্রকল্পের মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে আরামদায়ক ও সৃজনশীল উপায়ে শিশুদের সুষ্ঠু বিকাশ ও প্রাক প্রাথমিক শিক্ষা লাভে শেখার সুযোগ বৃদ্ধি করা এবং শিশুদের শিক্ষার চাহিদা মেটানো। শিশুর উপযোগী মান সম্মত শিখন কার্যক্রমের মাধ্যমে বিপুল সংখ্যক শিশুকে সুবিধা প্রদান, স্বাক্ষরতা, সংখ্যার ধারণা, বুদ্ধিভিত্তিক চিমত্মা ও মনোসামাজিক বিষয়ের ধারনা, সঠিকভাবে শিশুদের কাছে পৌঁছানো প্রকল্পের অন্যতম উদ্দেশ্য। প্রকল্পের আওতায় উন্নতমানের প্রাক শৈশব শিক্ষা উপকরণ তৈরী ও দেশব্যাপী বিতরণ করা হবে। বাংলাদেশ শিশু একাডেমী কর্তৃক বাসত্মবায়নাধীন সিসিমপুর আউটরিচ প্রকল্পের ভ্রাম্যমান ভ্যানের মাধ্যমে গণমাধ্যমহীন প্রত্যমত্ম এলাকার শিশুদের মাঝে সিসিমপুর অনুষ্ঠানটি প্রদর্শন করার লক্ষে প্রতিটি জেলায় দুইটি করে মোবাইল ভ্যান রয়েছে। এই মোবাইল ভ্যানটি পরিচালনার দায়িত্বে থাকবেন একজন সহায়ক, শিশুদের কাছে যিনি সিসিমপুর আংকল নামে পরিচিত হবেন।

 

 

১।    লাইব্রেরী বিভাগ ঃ প্রতিটি কর্মদিবসে শিশুদের জন্য লাইব্রেরী খোলা থাকে।

২।    প্রশিক্ষণ বিভাগ  ঃ

জ)সংগীত, নৃত্য, আবৃত্তি ও চিত্রাঙ্কন বিষয়ে ২ (দুই) বছর মেয়াদী প্রশিক্ষণ কোর্স চালু আছে।

ঝ)৩ (তিন) মাস মেয়াদী কম্পিউটার প্রশিক্ষণ কোর্স চালু আছে।

ঞ) প্রশিক্ষক ৫ জন।

৩।    প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষা কর্মসূচীঃ

       শিশু বিকাশ শ্রেণী-  শিক্ষক- ১ (এক) জন, ছাত্র/ছাত্রী- ৩০ জন।

       প্রাক প্রাথমিক শ্রেণী- শিক্ষক- ১ (এক) জন, ছাত্র/ছাত্রী- ৩০ জন।

৪। বিভিন্ন জাতীয় দিবস পালন ও কর্মসূচি বাসত্মবায়নঃ

ক) জাতীয় শিশু পুরষ্কার প্রতিযোগিতা            খ) শিশুদের মৌসুমী প্রতিযোগিতা

গ) মহান বিজয় দিবস                             ঘ) শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস

ঙ) মহান স্বাধীনতা দিবস                          চ) বিশ্ব শিশু দিবস

ছ) জাদুঘর উন্নয়ন ও জাদুঘর ভিত্তিক কার্যক্রম   জ) শিশু অধিকার সপ্তাহ

ঝ)  পুসত্মক প্রদর্শনী                                ঞ) শিশু আনন্দ মেলা       

ট) বাংলা নববর্ষ উদযাপন                         ঠ) আমত্মঃ জেলা সাংস্কৃতিক বিনিময়         

ড) শিশু অধিকার বাসত্মবায়ন (ফোরাম)            ঢ) শিশু নাট্য প্রতিযোগিতা                  

ণ) বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এঁর জন্ম দিবস ও জাতীয় শিশু দিবস উদযাপন 

ত) ১৫ আগষ্ট জাতীয় শোক  দিবস পালন        থ) ন্যাশনাল চিলড্রেন টাস্কফোর্স (এনসিটিএফ)- কে সহায়তাদান

দ) ইএলসিডি প্রকল্প বাসত্মবায়ন              ধ) সিসিমপুর আউটরীচ প্রকল্প বাসত্মবায়ন ।